উদ্যোক্তা হবার আগে যা জানা জরুরি

উদ্যোক্তা হবার আগে যা জানা জরুরি

চাকরি বাকরি আমাকে দিয়ে হবেনা, এসব আমি করতে পারবো না! আমি উদ্যোক্তা হতে চাই। দাঁড়ান! হ্যা, আপনাকেই বলছি! আপনার ইচ্ছাটা দারুন কিন্তু ইচ্ছাপূরণের আগে কিছু জিনিস লক্ষ্য করেছেন তো?

উদ্যোক্তা হবার ইচ্ছা 

জীবনের একটা পর্যায়ে এসে আমাদের অনেকেরই ইচ্ছা জাগে নিজের মতো করে কিছু করতে।  স্বাধীনভাবে চলতে, উপার্জন ও হবে আবার অন্যের অধীনে অন্যের মতন করে চলার থেকেও মুক্তি পাওয়া যাবে! কখনো কখনো অনেকদিন চাকরি করার পর মনে হয়, নাহ! এই কাজ আমার জন্যে না, নিজের বুদ্ধি বিবেচনা কাজে লাগাতে পারছিনা যেখানে সেই কাজ করে মনে শান্তি পাচ্ছিনা।  

আবার কখনো চারপাশ দেখে, পরিচিত কাউকে সফল ব্যবসায়ী দেখে ইচ্ছা করে, মনের মাঝে স্বপ্ন জাগে সেরকম একজন হতে, কখনো কাউকে দেখে না, নিজের ভেতর থেকেই ইচ্ছা থাকে কিছু করার নিজের মতো।  উদ্যোক্তা হবার ইচ্ছাতা আসলে এরকমই।  কখন যে কার মনে জেগে ওঠে আগে থেকে হিসাব করা যায়না সবসময়।  

উদ্যোক্তা হবার আগে যা করণীয় 

আপনার মন যদি চায় যে আপনি উদ্যোক্তা হিসেবে ভালো করবেন, আপনার একটি ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান চালাতে পারবেন তখন আপনার অবশ্যই কিছু ব্যাপার খেয়াল রাখা উচিত, তার কিছু এখানে উল্লেখ করা হলো – 

– টাকা উপার্জন কঠিন কাজ!

প্রথমে মনে হতে পারে, ভালো কিছু অফার করলে, ক্রেতাগোষ্ঠী অবশ্যই আসবে কিনবে, উদ্যোক্তা হওয়ার পরেই আমি লাভবান হয়ে যাবো। কিন্তু বাস্তবতা ভিন্ন।  অন্যের পকেট থেকে টাকা নিজের কাছে স্থানান্তর করার প্রক্রিয়াটি সহজ অবশ্যই  নয়। পরিকল্পনার সময় সহজ লাগলেও বাস্তবায়নের সময় অনেক খরচের খাত আবিষ্কৃত হয় যা আগে থেকে বোঝা যায়না।  

– সম্ভাব্যতা যাচাই জরুরি 

অনেক সময় খুব বেশি আত্মবিশ্সাস থাকে নিজের উপর আর মনে হতে থাকে, আমি ব্যবসায়ী হলে এইটা করতাম, ঐটা অর্জন করতাম। কিন্তু সম্ভাব্যতা যাচাই করতে গেলে বোঝা যায় আমি যেভাবে ভাবছি সেভাবে চিন্তা ভাবনা করা ঠিক হচ্ছে কিনা। বাজার ঘুরলে, প্রাসঙ্গিক বিভিন্ন পক্ষের সাথে কথা বললে বোঝা যায় যা নিয়ে আমি ভাবছি সেটা আসলেই চাহিদাসম্পন্ন কিনা নাকি কোনো ব্যবধান আছে আমার ও বাজার এর চলতি ধারার মাঝে।  

– ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা করেছেন তো?

উদ্যোক্তা হওয়ার আগে এটাও ভাবা উচিত যে ব্যবসায় উদ্যোগ কিন্তু একদিন বা এক বছরের ব্যাপার না! অনেকে দীর্ঘমেয়াদি কোনো পরিকল্পনা ছাড়াই হুট্ করে ব্যবসায়ে নেমে পরে এরপর বিভিন্ন জটিলতায় আর সামলাতে পৰ কঠিন হয়ে যায়।  আর যত দিন যায়, ব্যবসায়ের খরচ বাড়বেই, এটাও মাথায় রেখে ব্যবসায় উদ্যোক্তা হওয়া উচিত।  

– বিচক্ষণ প্রতিযোগীতে ভরপুর 

আজকাল ব্যবসায়ের যেকোনো ক্ষেত্রেই প্রতিযোগীর অভাব হয়না।  আপনি যতই ভালো আর ভিন্ন কিছু নিয়ে আসুননা কেন, কিছু দিন পরেই দেখা যায় আরো ভিন্ন কিছু নিয়ে কোনো প্রতিযোগীর আবির্ভাব! এরকম হওয়া মাত্র যারা দীর্ঘদিনের ক্রেতা, তারাও নতুন ওই প্রতিযোগীর কাছে চলে যায়! সুতরাং সফল হই বা ব্যর্থ, কঠিন প্রতিযোগিতার মুখোমুখি আমাকে হতেই হবে, এই চেতনা নিয়েই মাঠে নাম উচিত। 

– চাকরির চেয়ে ব্যবসায়ে কষ্ট কম!

অনেকে আমরা চাকরি জীবনের নিয়ম বাধা কাজ আর ক্রমাগত বর্ধিত কাজের চেইপ ভেবে থাকি যে নিজের একটা অনলাইন ব্যবসা থাকলে এত কষ্ট করতে হতোনা! এই চিন্তাটা কিন্তু মারাত্মক ভুল! হয়তো আপনাকে কোনো অফিসে যেতে হচ্ছে না প্রতিদিন দীর্ঘসময়ের জন্য কিন্তু কাজের পরিমান কম তা কিন্তু না! অনলাইন ব্যবসাকে কিভাবে ক্রেতার মাঝে আকর্ষণীয় ও প্রয়োজনীয় করে উপস্থাপন করা যায় এই একটা চিন্তায় বেস্ট রাখবে আপনাকে চব্বিশ ঘন্টা!

এই বিষয়গুলি মাথায় রেখেই আপনার উদ্যোক্তা হওয়ার সিদ্ধান্ত নিলে ভালো। একবার একটি উদ্যোগ নিয়ে সেটি পরে কেউই চায়না বাতিল করে দিতে, সবাই চায় তার স্বপ্ন পূরণ করতে, কিন্তু কিছু ব্যাপারে আগে থেকে লক্ষ্য না করলে ব্যর্থতার অন্ধকার চলে আসে আর তাই উদ্যোক্তা হবার আগে এই ব্যাপারগুলোতে মনোযোগী হওয়া উচিত।  

আচ্ছা, কী ভাবছেন? এত কিছু কেমনে কি করবো? ঠিক আছে, করতে হবে না আপনাকে! আপনি যদি ভেবে থাকেন যে আপনি উদ্যোক্তা হবেন, তাহলে তার জন্য প্রয়োজনীয় কাজগুলি করতে আমরাই আপনার জন্যে এগিয়ে আসবো।  আপনি শুধু যোগাযোগ করুন এই ঠিকানায় – 

www.beetechnologybd.com

+8801711085680

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

shares